মেয়েদের যৌন চাহিদা কমে যাওয়ার কারণ ও উত্তেজনা বৃদ্ধির উপায়

মেয়েদের যৌন চাহিদা কমে যাওয়ার কারণ ও উত্তেজনা বৃদ্ধির উপায়। মেয়েদের যৌন উত্তেজনা ছেলেদের মতো নয়, তাদের যৌন চাহিদা, যৌন তৃপ্তি সব কিছুই ছেলেদের থেকে ভিন্ন। আজকে এসব বিষয়ে জানাতে চেষ্টা করবো। পুরো লেখাটা একটা প্রশিক্ষনের মতো, তাই মনোযোগ সহকারে পড়বেন।

মেয়েদের যৌন চাহিদা বুঝার উপায়

মেয়েদের যৌন চাহিদা ছেলেদের চেয়ে অনেক বেশি, কিন্তু সৃষ্টিকর্তা এমনভাবে তাদেরকে তৈরি করেছেন, যে তারা চাইলে তাদের যৌন চাহিদা সবার কাছে গোপন রাখতে পারে। অনেকদিনের যৌনক্ষুধায় ভুগতে থাকা একটা মেয়ে উপযুক্ত পুরুষ পাশে থাকার পরো তারা স্বাভাবিক থাকতে পারে। যা একটি পুরুষ কখনই পারবেনা।

কারন তাদের যৌনাকাঙ্ক্ষা একটি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে প্রকাশ পায়, তাদের নানান উপায়ে উত্তেজিত করতে হয়। কদাচিৎ এমন কিছি নারী পাওয়া যায়, যারা নিজ থকেই উত্তেজিত হয়। তবে এর সংখ্যা কম, এরা সাধারণত কামুক প্রকৃতির নারী। পুরুষদের সামান্য সঙ্গ পেলেই তারা উত্তেজিত হয়ে পড়ে। ভাল পারফরমেন্স করতে পারলে, যে পুরুষ তাদের সঙ্গ পায়, তারা দাম্পত্য জীবনে চরম সুখী।

মেয়েদের যৌন সমস্যা কেন হয়

মেয়েদের যৌন সমস্যা একটি কমন সমস্যা, যা শতকরা ৮০% শতাংশ মেয়েদের মধ্যে দেখা যায়। এর কয়েকটা কারন থাকতে পারে বলে যৌন চিকিৎসকরা ধারনা করেছেন। ৬০% শতাংশ নারীদের যৌণ সমস্যার জন্য দায়ী হতে পারে, জরায়ু দুর্বলতার জন্য। এবং ৪০% মেয়েদের যৌন সমস্যা সৃষ্টি হয় তার অতীত ইতিহাসের জন্য। গবেষণায় কিছু তথ্য পাওয়া গেছে যে, এসব মেয়েরা তাদের যৌবনের শুরুর দিকে, প্রতিবেশী বা বয় ফ্রেন্ড কতৃক যৌন ক্রিয়ার অভিজ্ঞতা থাকায়, তাদের একটি মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়।

তা সবসময় একরকম হয়না, যেমন- কারো ক্ষেত্রে এটা একটা অপরাধ হিসাবে তাকে তাড়া করে, তাই সে স্বামী সহবাসের সময় বা তার আগে স্মরণ হতে থাকে। যা তার যৌন সমস্যার জন্য দায়ী। আবার কারো ক্ষেত্রে সাবেক যৌন সঙ্গীর স্মৃতি বা তার সাথে যৌন ক্রিয়ার অভিজ্ঞতা বর্তমান সঙ্গীর চেয়ে ভালো মনে হয়, যদিও ঐ নারী বুঝতে পারেনা সেদিনের সহবাস ছিলো কোন ঔষধের সাহায্যে। কারন, পরনারীর সাথে যৌনসঙ্গমের জন্য পুরুষেরা প্রায়ই বাড়তি ঔষধের সাহায্য নিয়ে থাকে।

এছাড়াও আরো কিছু কারনে মেয়েদের যৌন সমস্যা দেখা দিতে পারে। যেমন যৌন সঙ্গী পছন্দ না হলে সহবাসের ইচ্ছা হারিয়ে ফেলে, এই অনিচ্ছাকৃত মিলনের কারনে ধীরে ধীরেীসব মেয়েদের যৌন সমস্যা দেখা দেয়। অতিরিক্ত মানসিক চাপ, হজমে ত্রুটি, হৃদপিন্ডের দুর্বলতার কারনেও মহিলাদের যৌন দুর্বলতা দেখা দেয়।

মেয়েদের যৌন চাহিদা কমে যাওয়ার কারণ

মেয়েদের পৈতৃক বাড়ি ছেড়ে স্বামীর বাড়ি আসার কারন শুধু যৌন চাহিদার জন্যই। যদি স্বামীর কাছ থেকে পর্যাপ্ত সোহাগ ও যৌনসুখ না পায় এবং শারীরিক যত্নের অভাব হয়, সেই সাথে যৌনস্বাস্থের উপর প্রভাব পড়তে পারে এমন কোন রোগের চিকিৎসা যথা সময়ে না হয়, তাহলে মেয়েদের যৌন চাহিদা কমে যেতে থাকে।

পক্ষান্তরে মেয়েদের স্বামী যদি নিজের পছন্দের না হয়, বা তার পুর্বের কোন বয়ফ্রেন্ড বর্তমান স্বামীর চেয়ে সুদর্শন হয়, তাহলে ঐ মেয়ের সহবাসে বিরক্তি আসবে, একপর্যায়ে সহবাসে অনীহা থেকে যৌন চাহিদা নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

মেয়েদের যৌন চাহিদা কতটুকু

মেয়েদের যৌন চাহিদা কতটুকু বা কেমন তা একজন যৌনক্ষুধায় থাকা নারীই বুঝে, পুরুষের চেয়ে প্রায় ১০গুন বেশি নারীর যৌন চাহিদা। একজন বিবাহিত নারীর যৌন চাহিদা প্রকাশ পায় তার স্বামীর সাথে অসাধাচারনের মাধমে। যখন সে বাজে আচরন করবে, বুঝতে হবে তার যৌন চাহিদা পুরনে ব্যার্থ। স্বামী যদি কোন কারনে কয়েকদিনের জন্য সহবাস বন্ধ করে দেন, কিছুদিন যাওয়ার পর মহিলাদের আচরনে বেশ পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাবে। এটাই তার যৌন চাহিদার বর্হিপ্রকাশ। 

আবার যে মেয়েদের কয়েকবার যৌনতৃপ্তির অভিজ্ঞতা আছে, বা কোন বিবাহিত নারীর স্বামী দীর্ঘদিন কাছে না থাকলে, তার শারীরিক কিছু জটিলতা দেখা দিবে। যেমন, শরীর ব্যথা, মাথা ঝিম ঝিম করা, হাত পা ফুলে যাওয়া, প্রলাপ করা ইত্যাদি, এর কারন ঐ নারীর যৌন চাহিদা সঠীকভাবে পুরন হচ্ছেনা বা ব্যহত হচ্ছে।

মেয়েদের যৌন উত্তেজনা তৈরি হয় কিভাবে

মেয়েদের যৌন উত্তেজনা একটি রহস্যজনক ব্যাপার। ছেলেদের মতো তা প্রকাশ না পাওয়ায় বহু পুরুষ তাদের উত্তেজনা অনুমান করতে পারেনা। আবার পুরুষের মতো যখন তখনো তারা উত্তেজিত হয়না, তাই এটা একটা রহস্যের মধ্যেই রয়ে গেছে।

মেয়েদের যৌন উত্তেজনা তৈরি করতে পুরুষদের কিছু কাজ করতে হয়, যেমন মিলনের আগে তাদের কয়েকটি স্পর্শকাতর অঙ্গে শৃঙ্গারের মাধ্যমে তাদেরকে উত্তেজিত করতে হয়। শৃঙ্গার মানে, আদর করা, স্পর্শ করা, চুমু বা চুষা। যা মেয়েদেরকে উত্তেজিত করতে খুব সহায়তা করে।

মেয়েদের যৌন ক্ষমতা বাড়ানোর উপায়

মেয়েদের যৌন ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য বাড়তি খাবারের পাশাপাশি তাদের মাসিকের কোন সমস্যা আছে কিনা খোঁজ নেয়া। যদি মাসিক চক্রে কোন সমস্যা বা জরায়ুতে কোন দুর্বলতা আছে জানা যায়, তাহলে তার চিকিৎসা করা। পারিবারিক চাপ, পুরানো ইতিহাস থেকে মুক্ত জীবন যাপন করার চেষ্টা করা। ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার, জিংক ও প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার বেশি পরিমানে খাওয়া। কাজের অবসরে স্বামীকে কল্পনা করা, আগের রাতের সহবাসের কথা স্মরণ করে পরবর্তী রাতে কেমন পারফরমেন্স করা যায় তার পরিকল্পনা করা। রক্তস্বল্পতা থাকলে আয়রন সমৃদ্ধ খাবার অথবা আয়রন+ভিটামিন বি+ জিংক এর ক্যাপসুল পাওয়া যায়, তা ১-২ মাস খাওয়া উচিৎ।

মেয়েদের যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধির ঔষধ

মেয়েদের যৌন উত্তেজনার জন্য তেমন কোন ঔষধের প্রয়োজন হয়না, তারপরো যদি কারও যৌন উত্তেজনার ঔষদের প্রয়োজন হয়, তাহলে একজন সেক্সোলজি ডাক্তার দেখাতে পারেন। কারন বাজারে প্রচলিত যৌনশক্তি বৃদ্ধির ঔষধ শুধুমাত্র পুরুষদের জন্য উৎপাদন করা হয়। মেয়েরা এসব ঔষধ খাওয়া নিষিদ্ধ, এতে তাদের মৃত্যু ঝুঁকি থাকতে পারে। তাই বাজারের এসব ঔষধ খাওয়াবেননা।

কোন ধরনের মেয়েদের যৌন চাহিদা বেশি

যেসব মেয়েরা দেখতে অনেকটা স্লিম তাদের যৌন চাহিদা মোটা মেয়েদের থাকে একটু বেশি থাকে। কিছু কিছু মেয়ে আছে যাদের দৈহিক গঠন অনেকটা চেপ্টা এবং দেহের উপরের অংশের চেয়ে নিচের অংশ লম্বা হয়, অন্যদের তুলনায় ঐ সকল মেয়েদের যৌন চাহিদা বেশি থাকে।

সবশেষে

মেয়েদের যৌন চাহিদা কমে যাওয়ার কারন, যৌন সমস্যা ও যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধির উপায় সহ যা জানলেন, তা কোন খারাপ উদ্যেশ্যে ব্যবহার না করার অনুরোধ থাকবে। আরো কিছু জানতে চাইলে কমেন্ট করে প্রশ্ন করবেন। 

আরো পড়ুন- লিঙ্গ মোটা করার ঔষধ বা পদ্ধতিগুলো কি

হারবাল ঔষধ কিনতে এখানে ক্লিক করুন

We will be happy to hear your thoughts

      Leave a reply

      হারবাল ঔষধ
      Logo
      Compare items
      • Total (0)
      Compare
      0
      Shopping cart